আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপ শেষ হয়েছে দ্বিতীয় রাউন্ডেই। তারপরেই অনেকটা লোকচক্ষুর অন্তরালে লিওনেল মেসি। বার্সেলোনায় ফিরে এতদিন পরিবারের সঙ্গে ছুটি কাঁটিয়ে মাত্রই ফিরেছেন বার্সেলোনায়।

মেসি বার্সেলনাতে ফিরলেও তাকে নিয়ে বেশ বড়সড় গুঞ্জন শুরু হয়েছিল বাংলাদেশে। ইউনিসেফের অ্যাম্বাসেডর হিসেবে কক্সবাজারের রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবির পরিদর্শনের জন্য চলতি মাসের ২২ জুলাই বাংলাদেশের আসার গুঞ্জন চাওর হয়েছিল বাংলাদেশের গণমাধ্যমে।

কিন্তু সেটিকে পুরোপুরি ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দিলেন বাংলাদেশে উইনিসেফের যোগাযোগ ব্যবস্থাপক এএম সাকিল ফয়েজুল্লাহ।  তিনি জানান, ‘এটা পুরোপুরি ভিত্তিহীন একটি খবর। বর্তমানে বাংলাদেশে আসার কোনো সম্ভাবনা নেই মেসির।’

ফয়েজুল্লাহ আরো জানান, আর্জেন্টিনার ফুটবল ফেডারেশন এবং তাদের ওখানকার ইউনিসেফ অফিসে যোগাযোগ করেও মেসির বাংলাদেশে আসার ব্যাপারে কোনো নিশ্চিত তথ্য পাওয়া যায়নি।

এর আগে ২০১১ সালের ৬ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশে একটি প্রীতি ম্যাচ খেলতে এসেছিলেন লিওনেল মেসি। ইউনিসেফের দূত হিসেবে ২০০৬ সালে জিনেদিন জিদান বাংলাদেশে আসলেও আর তেমন বড় কোনো ফুটবলারের বিংশ শতাব্দীতে পা পড়েনি এই বাংলাদেশে।

Facebook Comments
bdwebhost24.com