শেরপুর সদর আসনে বিএনপির প্রার্থীসহ ৬ জনের মনোনয়ন বাতিল

bdwebhost24.com

শেরপুরে ৩টি আসনের ২২ জন প্রার্থীর মধ্যে শেরপুর সদরের বিএনপির প্রার্থীসহ ৬ জনের মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে। পদত্যাগপত্রের কপি জমা না দেয়ায় ঝুলে রয়েছে শেরপুর ২ আসনে বিএনপির প্রার্থী উপজেলা চেয়ারম্যান মোখলেছুর রহমানের মনোনয়ন।
দুপুরে জেলা রিটার্নিং অফিসার ও জেলা প্রশাসক আনারকলি মাহবুবু তার কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে মনোনয়ন বাছাইয়ে বৈধ ও অবৈধ প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করেন।
শেরপুর সদর আসনের ৯ প্রার্থীর মধ্যে জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও বিএনপির প্রার্থী হযরত আলীর মনোনয়ন বাতিল হয়েছে ঋণ খেলাপি হওয়ায়। তবে তার মেয়ে ডা. সানসিলা জেবরিন প্রার্থীতা বৈধ হয়েছে। তিনিও বিএনপির মনোনীত প্রার্থী। এদিকে আওয়ামীলীগের প্রার্থী বর্তমান এমপি ও সংসদে হুইপ আতিউর রহমান আতিকে প্রার্থীতা বৈধ ঘোষণা করেছেন রিটার্নিং অফিসার। জাতীয় পার্টি এরশাদের প্রার্থী ইলিয়াস উদ্দিনের মনোনয়ন বৈধ হয়েছে। এছাড়া দলীয় মনোনয়নের চিঠি না থাকায় ফজলুল কাদের লুুটু ও শফিকুল ইসলাম মাসুদের মনোনয়ন বাতিল ঘোষণা করা হয়েছে।
শেরপুর ২ (নকলা-নালিতাবাড়ী) আসনের দাখিলকৃত ৫ জনের মধ্যে আওয়ামী লীগের এমপি ও কৃষিমন্ত্রী বেগম মতিয়া চৌধুরীর মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে। বৈধ হয়েছে বিএনপির ফাহিম চৌধুরী ও ব্যারিস্টার হায়দার আলীর মনোনয়নও। বিএনপির আরেক প্রার্থী উপজেলা চেয়ারম্যান মোখলেছুর রহমান রিপনকে উপজেলা চেয়ারম্যান থেকে তার পদত্যাগের ব্যাপারটি নিশ্চিত করতে বলা হয়েছে।
শেরপুর ৩ (শ্রীবরদী-ঝিনাইগাতী) আসনে দাখিলকৃত ৮ মনোনয়নের মধ্যে ৩টি বাতিল করা হয়েছে। বৈধ হয়েছেন বর্তমান এমপি আওয়ামী লীগের ফজলুল হক চাঁন, বিএনপির দুই প্রার্থী সাবেক এমপি মাহমুদুল হক রুবেল ও মেজর অবসরপ্রাপ্ত মাহমুদুল হাসান। দুই স্বতন্ত্র প্রার্থী সরোয়ার বাহাদুর লাল ও ইন্তাজ আলীর মনোনয়ন বাতিল হয়েছে। পিডিপি’র আবু বক্কার অনুপস্থিত থাকায় তার মনোনয়ন বাতিল হয়।

bdwebhost24.com
শেয়ার