নিলেশ খেদেকার। ২৫ বছরের এই যুবক পেশায় একজন ব্যবসায়ী। তার প্রেমিকার নাম বিলাস শিভদে। সম্প্রতি প্রেমিকার সাথে মনোমালিন্য হয় এই যুবকের। প্রেমিকা তার আচরণে কষ্ট পেয়ে যোগাযোগ বন্ধ করে দেন। আর এতেই নড়েচড়ে বসেন ওই যুবক।

অনুতপ্ত ওই যুবক প্রেমিকার মন ভাঙাতে বেছে নেন অভিনব পন্থা। ‘শিভদে, আই অ্যাম সরি’-বলে সড়কে পুঁতে দিয়েছেন ৩০০ ব্যানার। বোল্ড অক্ষরে ‘সরি’ লেখার পাশে হৃদয়ের চিহ্ন। বিষয়টি নজর কেড়েছে পথচারীদের। শেষমেশ বিষয়টি পুলিশ পর্যন্ত গড়িয়েছে। ভারতের মহারাষ্ট্রের পুনে শহরে ঘটনাটি ঘটেছে।

ভারতীয় একটি গণমাধ্যম বলছে, এভাবে সড়কে ব্যানার পুঁতে রাখতে ওই যুবকের ৭২ হাজার টাকা খরচ হয়েছে। সে তার এক বন্ধুর সহযোগিতায় রাতের অন্ধকারে ব্যানারগুলো পুঁতে রাখে।

এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়, এ ঘটনায় বেশ বিপাকে পড়েছেন ওই যুবক। কারণ ব্যানারগুলো সড়কের দৃশ্যমান ট্রাফিক সিগনালের জায়গায় পুঁতে রাখা হয়েছে। এভাবে অবৈধ ব্যানার স্থাপন ও সরকারি সম্পদের সৌন্দর্যহানি ঘটানোর অপরাধে ফেঁসে যেতে পারেন তিনি।

sorryy

তবে পুলিশের একজন কর্মকর্তা জানান, অবৈধ ব্যানার পুঁতে রাখার বিষয়টি অবগত হওয়ার পর এ বিষয়ে তদন্ত শুরু হয়েছে।

‘যিনি এই যুবককে এগুলো করতে প্ররোচিত করেছেন, আমরা ওই মেয়েটার সাথে কথা বলতে পেরেছি। পরে মেয়েটার মাধ্যমেই আমরা ওই যুবকের সন্ধান পাই। সে জানিয়েছে, প্রেমিকার সাথে ঝগড়া করার পর সে এ অভিনব পন্থা বেছে নেয়।’ জানান ওই পুলিশ কর্মকর্তা।

তবে এটা এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি যে, এভাবে পুঁতে রাখা ব্যানার তার প্রেমিকার মন আ-দৌ গলাতে সক্ষম হয়েছে কি না। তবে তিনি ঠিকই মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশন ও পুলিশের দৃষ্টি কাড়তে পেরেছেন। গুরুত্বপূর্ণ সড়কে এভাবে অবৈধ ব্যানার পুঁতে রাখা ও সরকারি সম্পদের সৌন্দর্যহানি ঘটানোর অপরাধে তার বিরুদ্ধে মামলা ঠুঁকে দিয়েছে পুলিশ।

Facebook Comments
bdwebhost24.com