ইরানের পক্ষে গোয়েন্দাগিরির অজুহাতে ইসরাইলি মন্ত্রীর ১১ বছর জেল

bdwebhost24.com

ইহুদিবাদী ইসরাইলের সাবেক জ্বালানিমন্ত্রী গোনেন সেগেভকে ১১ বছরের কারাদণ্ড দিতে যাচ্ছে একটি আদালত। ইরানের পক্ষে গোয়েন্দাগিরি করার কথা স্বীকার করায় তার দণ্ড কমিয়ে ১১ বছর করা হচ্ছে।

ইসরাইলের বিচার মন্ত্রণালয় আজ (বুধবার) জানিয়েছে, আলোচনার মাধ্যমে গোনেন সেগেভ রাজি হয়েছেন যে, মারাত্মক রকমের গোয়েন্দাগরি ও শত্রুর কাছে তথ্য পাচার করার বিষয়ে তিনি নিজের দোষ স্বীকার করবেন; এর বিনিময়ে তার বিরুদ্ধে সাজা কমিয়ে ১১ বছর করা হবে। জেরুজালেমের ডিস্ট্রিক্ট অ্যাটর্নির কার্যালয় জানিয়েছে, আগামী ১১ ফেব্রুয়ারি সেগেভের রায়ের শুনানি অনুষ্ঠিত হবে।

গোনেন সেগেভ ১৯৯২ সালে ইসরাইলের সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। তিনি ১৯৯৫-৯৬ সালে ইসরাইলের জ্বালানিমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন। গত মে মাসে গায়ানা সফরের সময় তাকে আটক করে ইসরাইলে পাঠানো হয়। গোনেন সেগেভ যুদ্ধক্ষেত্র ও  রাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনার তথ্য শত্রুর কাছে পাচার করেছেন বলে অভিযোগ আনা হয়েছিল। ইসরাইলের অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা সংস্থা শিন বেথ এসব কথা জানায়।

শিন বেথ দাবি করেছে, ১৯৯০ দশকের মাঝামাঝি সময়ে ইসরাইলের জ্বালানিমন্ত্রীর দায়িত্ব পালনের সময় সেগেভ ইরানি গোয়েন্দো সংস্থার এজেন্ট হিসেবে কাজ করেছিলেন এবং সেসময় ইসরাইলের জ্বালানি বাজার ও নিরাপত্তা স্থাপনা সম্পর্কে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য ইরানকে দিয়েছিলেন। পাশাপাশি ইসরাইলের অনেক গুরুত্বপূর্ণ রাজনৈতিক নেতা ও নিরাপত্তা সংস্থার কর্মকর্তা সম্পর্কে তথ্য পাচার করেছিলেন।

শিন বেত জানিয়েছে, ৬২ বছর বয়সী সেগেভ ইসরাইলের নিরাপত্তা সেক্টরের কিছু লোককে ইরানের গোয়েন্দা এজেন্টদের সঙ্গে সম্পর্ক প্রতিষ্ঠা করে দিয়েছেন। তিনি নাকি ইরানের গোয়েন্দা এজেন্টদেরকে ব্যবসায়ী হিসেবে তুলে ধরেন।#

bdwebhost24.com
শেয়ার