ঈদুল ফিতর, ঈদুল আযহা, পূজা ও পহেলা বৈশাখের সময় যৌথ প্রযোজনার সিনেমা ছাড়া ভারতীয় বাংলা, হিন্দি, পাকিস্তানিসহ বাইরের দেশের যে কোনো চলচ্চিত্র দেশে আমদানি, প্রদর্শন ও বিতরণ না করার সিদ্ধান্ত দিয়েছেন সুপ্রিম কোটের্র আপিল বিভাগ।

হাইকোটের দেয়া আদেশ স্থগিত চেয়ে করা আবেদন নিষ্পত্তি করে বুধবার প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে তিন সদস্যের আপিল বিভাগের বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে নীপা এন্টারপ্রাইজের স্বত্ত্বাধীকারী সেলিনা বেগমের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী আজমালুল হক কিউসি। সঙ্গে ছিলেন, ব্যারিস্টার এম. মনিরুজ্জামান আসাদ। অন্যদিকে হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত চেয়ে করা আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী এএম আমিন উদ্দিন।

পরে এম. মনিরুজ্জামান আসাদ সাংবাদিকদের বলেন, বিদেশি সিনেমা আমদানি ও প্রদর্শনের ফলে দেশি সিনেমায় দর্শক পাওয়া যাচ্ছে না। তাই নীপা এন্টারপ্রাইজের স্বত্ত্বাধীকারী সেলিনা বেগম সংক্ষুব্ধ হয়ে একটি রিট দায়ের করেন। হাইকোর্ট ওই রিটের শুনানি নিয়ে যৌথ প্রযোজনা সহ সকল বিদেশি সিনেমার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেন।

তিনি আরও বলেন, এরপর সে আদেশ স্থগিত চেয়ে আপিলে আবেদন জানায় চলচ্চিত্র প্রদর্শক সমিতির সভাপতি মো. ইকতেদার উদ্দিন নওশাদ। আদালত ওই আবেদনের শুনানি নিয়ে হাইকোর্টের আদেশ কিছুটা মোডিফাই করেছেন। এর ফলে দেশে যৌথ প্রযোজনার ছবি চলতে বাধা নেই। তবে, আমদানি করা সিনেমা প্রদর্শণে হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞা বহালই থাকছে।

প্রসঙ্গত, নীপা এন্টারপ্রাইজের স্বত্ত্বাধীকারী সেলিনা বেগমের এক রিট আবেদনের শুনানি নিয়ে গত ১০ মে হাইকোর্ট দেশে যৌথ প্রযোজনাসহ সকল প্রকার বিদেশি সিনেমা আমদানী ও প্রদর্শনের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেন। হাইকোটের বিচারপতি সালমা মাসুদ চৌধুরী এবং বিচারপতি একেএম জহিরুল হকের সমন্বযে গঠিত বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

এরপর হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত চেয়ে আবেদন করেন চেম্বারজজ আদালতে। আবেদন শুনানির জন্য চেম্বার আদালত আপিল বিভাগের নিয়মিত বেঞ্চে পাঠানো হয়। আজ ওই আবেদনটি শুনানি করে আপিল বিভাগ এ আদেশ দেন।

সুত্রঃ জাগো নিউজ২৪

Facebook Comments
bdwebhost24.com