‘যারা মিথ্যে কথাটি ছড়িয়েছে তাদের আমি নিন্দা করি’

দেশবরেণ্য চলচ্চিত্র নির্মাতা কাজী হায়াৎ উন্নত চিকিৎসার জন্য গত ২২শে ডিসেম্বর রাত ১০টায় বাংলাদেশ থেকে আমেরিকার উদ্দেশ্যে রওনা করেন। সঙ্গে যান একমাত্র সন্তান কাজী মারুফ। বর্তমানে নিউ ইয়র্কের প্রেসবাইটেরিয়ান হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন কাজী হায়াৎ। তবে গতকাল সন্ধ্যায় গুজব ছড়িয়ে পড়ে কাজী হায়াৎ মারা গেছেন। এ খবরে বেশ কষ্ট পান কাজী হায়াৎ ও তার সন্তান কাজী মারুফ। পরে ফেসবুকে কাজী মারুফ এক স্ট্যাটাসে লিখেন, আমার বাবা ভালো আছেন। প্লিজ কেউ অপপ্রচার চালাবেন না। এরপর কাজী হায়াৎ হাসপাতালের বিছানা থেকে কাজী মারুফের ফেসবুকের মাধ্যমে লাইভে আসেন।

সেখানে তিনি বলেন, আমি হাসপাতালে আছি। অসুস্থ তবে বেঁচে আছি। যারা মিথ্যে কথাটি ছড়িয়েছে তাদের আমি নিন্দা করি। কেন এই মিথ্যে কথা, আমি খুব কষ্ট পেলাম। সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন, আমি যেন ভালো হয়ে বাংলাদেশে ফিরে যেতে পারি। উল্লেখ্য, দীর্ঘ কয়েক বছর ধরেই হার্ট ও শরীরের বিভিন্ন অসুখে ভুগছেন গুণী নির্মাতা কাজী হায়াৎ। মাঝে চিকিৎসার কারণে নিউ ইয়র্কের মাউন্ট সিনাই হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন তিনি। সেখানে উন্নত চিকিৎসা করা হয় তার। বর্তমানে তার শারীরিক অবস্থা খারাপ হওয়ায় আবারো নিউ ইয়র্কে রওনা করেন তিনি। হৃদরোগ ও ডায়াবেটিসে আক্রান্ত কাজী হায়াতের ঘাড়ের একটি রক্তনালিতে ব্লক ধরা পড়েছে। উন্নত চিকিৎসার জন্য বর্তমানে কাজী হায়াৎ নিউ ইয়র্কের প্রেসবাইটেরিয়ান হাসপাতালে ভর্তি আছেন। কাজী মারুফ তার বাবার সুস্থতার জন্য দেশবাসীর নিকট দোয়া চেয়েছেন।

bdwebhost24.com
সূত্রঃমানবজমিন
শেয়ার