আম দেয়ার কথা বলে ২ শিশুকে ধর্ষণের চেষ্টা

টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে আম পেড়ে দেয়ার কথা বলে ৮ ও ১০ বছরের দুই শিশুকে ধর্ষণের চেষ্টা করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। শনিবার এ ঘটনায় অভিযুক্ত নুরু মিয়ার (৪০) বিরুদ্ধে এক শিশুর মা মির্জাপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। এর আগে শুক্রবার বিকেলে উপজেলার একটি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। অভিযুক্ত নুরু মিয়া বাঁশতৈল নয়াপাড়া গ্রামের চৌধুরীর ছেলে।

অভিযোগে উল্লেখ করা হয়, শুক্রবার বিকেলে নুরু মিয়া পার্শ্ববর্তী বাড়ির ওই দুই শিশুকে আম পেড়ে দেয়ার কথা বলে বাড়ি থেকে পাঁচশ গজ দূরে আম গাছ সংলগ্ন বাঁশ ঝাড়ে নিয়া যায়। সেখানে শিশু দুটির হাতে বিশ টাকা করে দিয়ে তাদের পরনের কাপড় খুলতে বলে নুরু মিয়া। এক পর্যায় ছোট শিশুটি দৌঁড়ে পালিয়ে গেলেও বড় শিশুটির হাত ধরে কাপড় খুলে ধর্ষণের চেষ্টা করে সে। এ সময় শিশুটির চিৎকারে লোকজন আসলে নুরু পালিয়ে যায়। পরে শনিবার সকালে শিশু দু’টির পরিবারের লোকজন স্থানীয় মাতাব্বরদের বিষয়টি জানালে তাদের পরামর্শে শিশু দুটির মা থানায় নুরু মিয়ার নামে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ দায়ের করেন।

এ বিষয়ে জানতে অভিযুক্ত নুরু মিয়ার মোবাইল ফোনে বারবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি।

এদিকে বাঁশতৈল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আতিকুর রহমান মিল্টন জানান, ঘটনাটি কেউ তাকে অবহিত করেননি।

অভিযোগ পাওয়ার কথা স্বীকার করে মির্জাপুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ কে এম মিজানুল হক বলেন, ‘বিষয়টি বাঁশতৈল ফাঁড়ির তত্ত্বাবধায়ক (ইনচার্জ) এনামুল হককে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার জন্য বলা হয়েছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।’

সূত্রঃ জাগো নিউজ

bdwebhost24.com
শেয়ার