26.5 C
Sherpur
সোমবার, মে ২৭, ২০২৪

রুশ জ্বালানি তেল আমদানি ৩৩ গুণ বাড়িয়েছে ভারত

বিশ্বের তৃতীয় বৃহৎ অপরিশোধিত জ্বালানি তেল আমদানিকারক...

বাড়ছে আবারো গ্যাসের দাম

সাত মাসের মাথায় আবারো গ্যাসের দাম বাড়ানোর...

সংসদ উপনেতা হিসেবে মন্ত্রীর পদমর্যাদায় মতিয়া চৌধুরী

গত ১২ জানুয়ারি রাতে সংসদ ভবনে আওয়ামী...

আশুলিয়ায় শ্রমিক অসন্তোষ, অবরোধ-ভাংচুর

প্রধান প্রধান খবরআশুলিয়ায় শ্রমিক অসন্তোষ, অবরোধ-ভাংচুর
- Advertisement -
- Advertisement -

সাভারের আশুলিয়ায় উৎসব বোনাস ও ঈদের ছুটি বৃদ্ধির দাবি জানিয়ে একটি পোশাক কারখানার শ্রমিকরা সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছে। পুলিশের সাথে জড়িয়েছে সংঘর্ষে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে লাঠিচার্জ করে কাঁদানে গ্যাস ছুড়েছে পুলিশ। উভয় পক্ষের ধাওয়া পাল্টা-ধাওয়ায় আহত হয়েছে কমপক্ষে ২০ জন।

রোববার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে নবীনগর-চন্দ্রা মহাসড়কের আশুলিয়ার পলাশবাড়ী এলাকায় ‘স্কাইলাইন গ্রুপ’ কারখানার শ্রমিকরা পুলিশের সাথে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে মহাসড়কের পাশে স্কাইলাইন গ্রুপ কারখানা থেকে কয়েক শ’ শ্রমিক বিক্ষোভ নিয়ে নবীনগর-চন্দ্রা মহাসড়কে অবস্থান নেয়। তখন বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা সড়কের পাশে স’মিল থেকে গাছের টুকরো এনে মহাসড়কে বেড়িকেড দেয়। পরে পুলিশ শ্রমিকদের একাধিকবার বাধা দিলে শ্রমিকরা ক্ষিপ্ত হয়ে যায়। এক পর্যায়ে পুলিশ ধাওয়া দিলে শ্রমিকরা ইট-পাটকেল নিক্ষেপ শুরু করে। তখন শুরু হয় শ্রমিক-পুলিশ ধাওয়া পাল্টা-ধাওয়া। সড়কের পাশে থাকা পোশাক কারখানার কার্ভাড ভ্যান, বাস, প্রাইভেটকার-সহ ৮/১০ যানবাহন ভাংচুর করে। এছাড়া ইটপাটকেল ছুড়ে তাদের কারখানারও জানালার কাচ ভাংচুর করেছে বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা।
অবস্থার বেগতিক দেখে পুলিশ শ্রমিকদের উপর লাঠিচার্জ শুরু করে। শ্রমিকরাও ইটপাটকেল ছুড়লে পুলিশ কয়েক রাউন্ড কাঁদানে গ্যাস ছুড়ে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করে। উভয় পক্ষের সংঘর্ষে পুলিশ-সহ অন্তত ২০ জন আহত হয়েছে।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিক্ষোভে অংশ নেয়া কারখানার একাধিক শ্রমিক বলেন, ঈদের ছুটি মাত্র ছয় দিন দেয়া হয়েছে। রমজান মাসে সকাল ৬টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত কারখানা কর্তৃপক্ষ আমাদের দিয়ে কাজ করিয়েছে। এর আগে আমাদের বেসিক বেতনের অর্ধেক বোনাস দিয়েছিল। যেটা কোন ফ্যাক্টরিতে করে না। তাই ১০ দিন ছুটি দিতে হবে। আর ফুল বেসিক অনুযায়ী আমাদের বোনাস দিতে হবে।
তারা বলেন, আমরা ন্যায্য বোনাস ও ছুটির দাবিতে আজ আন্দোলন করতে বাধ্য হয়েছি। কিন্তু পুলিশ আমাদের উপর লাঠিচার্জ ও টিয়ারশেল নিক্ষেপ করায় অনেক শ্রমিক আহত হয়েছে।
গামের্ন্টস শ্রমিক ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্রের সাংগঠনিক সম্পাদক খায়রুল মামুন মিন্টু বলেন, ঈদের ছুটি কম দেওয়ার কারখানাটির শ্রমিকরা আন্দোলনে নামে। তখন পুলিশ শ্রমিকদের উপর লাঠিচার্জ ও কাঁদানে গ্যাস ছুড়লে বেশ কয়েকজন শ্রমিক আহত হয়েছে।
তিনি বলেন, পরে কর্তৃপক্ষ কারখানা ছুটি ঘোষণা করেন।
স্কাইলাইন গ্রুপের প্রশাসনিক কর্মকর্তা আতাউর রহমান জানান, কারখানার কাজের চাপ থাকায় শ্রমিকদের ঈদের ছুটি সাত দিন নির্ধারণ করেছে কর্তৃপক্ষ। কিন্তু শ্রমিকদের দাবি ছিল ১০ দিন। তিন দিন ছুটি কম দেওয়ায় শ্রমিকরা আন্দোলন করেছে। তাদের এই আন্দোলনের কারণে ঈদের আগে কর্তৃপক্ষের ব্যাপক ক্ষতির সম্মুক্ষীণ হতে হলো।
তিনি বলেন, শ্রমিকদের দাবিগুলো মেনে নিয়ে কর্তৃপক্ষ আজকের (রোববার) জন্য কারখানা ছুটি ঘোষণা করেছে।
আশুলিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এসএম কামরুজ্জামান বলেন, ঈদের ছুটি ও বোনাসের দাবিতে স্কাইলাইন গার্মেন্টসের শ্রমিকরা বিক্ষোভ করেছে। তারা সড়ক অবরোধ করে বেশ কিছু পরিবহনে ভাংচুর চালিয়েছে। এসময় তাদের ছোড়া ইটপাটকেলে আমাদের ৪/৫ পুলিশ সদস্য সামান্য আহত হয়েছে। শ্রমিকদের সড়ক থেকে সরিয়ে দিলে প্রায় দেড় ঘণ্টা পর যানচলাচল স্বাভাবিক হয়।
- Advertisement -
spot_img

অন্যান্য সংবাদ সমূহ

Check out other tags:

জনপ্রিয় সংবাদ স্মূহঃ