Close

উপজেলা নির্বাচনে আচরণবিধি ভঙ্গের অভিযোগের প্রতিবাদে হুইপ কন্যার সংবাদ সম্মেলন

শেষ ধাপে অনুষ্ঠিতব্য শেরপুর সদর উপজেলা নির্বাচনে হুইপ আতিউর রহমান আতিক ও তার বড় মেয়ে শেরপুর সদর উপজেলার ভারপ্রাপ্ত পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. শারমিন রহমান অমির বিরুদ্ধে নৌকার পক্ষে প্রচার চালানোর অভিযোগ উঠে। এই অভিযোগের প্রতিবাদে ডা. শারমিন রহমান অমি বুধবার সদর উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলন করেন।

সংবাদ সম্মেলনে ডা. শারমিন রহমান অমি বলেন, ‘তিনি সরকারি কর্মকর্তা হওয়ায় তার পক্ষে নির্বাচনী কার্যক্রমে জড়ানো সম্ভব নয়। আমার বিরুদ্ধে নির্বাচনী প্রচারণার যে অভিযোগ আনা হয়েছে তার সম্পূর্ণ মিথ্যা। তবে আমার পিতা হুইপ হবার কারণে আমার সরকারি বিভাগীয় কার্যক্রম থেকে বিরত থাকার কোন সুযোগ নেই। আর আমার বিভাগীয় কাজের সাথে নির্বাচনের কোন সম্পর্ক নেই।’

তিনি আরো বলেন, দায়িত্ব গ্রহণের পর থেকেই উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা এবং মা ও শিশু স্বাস্থ্য কার্যক্রমের অগ্রগতি বৃদ্ধিতে চিঠি প্রদানের মাধ্যমে ৮টি ইউনিয়নে উঠান বৈঠক এবং সেপ্টেম্বর-অক্টোবর মাসে ৬টি ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও কেন্দ্রে বিশেষ ক্যাম্পের আয়োজন করেছেন। ফলে ওইসব ক্যাম্পে ইতোমধ্যে ১৯৯ জন মহিলা দম্পতি দীর্ঘমেয়াদী ইমপ্লান্ট পদ্ধতি ও ৫৮ জন স্থায়ী পদ্ধতি গ্রহণ করেছে।

উল্লেখ্য গত সোমবার উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়াম্যান পদের স্বতন্ত্র প্রার্থী ও জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি মিনহাজ উদ্দিন মিনাল এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে হুইপ আতিউর রহমান আতিক ও তার মেয়ে ডা. শারমিন রহমান অমি’র বিরুদ্ধে নির্বাচনী আচরণবিধি লংঘন এবং নৌকার পক্ষে প্রচারণার অভিযোগ করেন। মঙ্গলবার হুইপ আতিকের এলাকার ত্যাগের দাবিতে অবস্থান করেন নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয়ের সম্মুখে। পরে হুইপ আতিউর রহমান আতিকের এলাকা ত্যাগের কথা জানানোতে অবস্থান ধর্মঘট প্রত্যাহার করেন ওই প্রার্থী।

Facebook Comments
scroll to top